ডায়েট

মিলিটারি ডায়েট প্ল্যান অনুসরণ করে মাত্র তিন দিনে কমান ৩ কেজি

^C0115950033C923CE3EC133C68F1CAA67CB636DBC761473C2D^pimgpsh_fullsize_distr

মাঝে মাঝে অনেকেই জানতে চান,“কীভাবে এক সপ্তাহে পাঁচ কেজি ওজন কমাব? আমার সামনে বড় অনুষ্ঠান, অথবা বিয়ে ইত্যাদি ইত্যাদি…।”

আজ এই আর্টিকেলে যে ডায়েট প্ল্যানের কথা বলব তার নাম মিলিটারি ডায়েট প্ল্যান। এটা খুবই কঠোর  ডায়েট ট্রেনিং। যারা ওজন নিয়ে খুবই সমস্যায় তারা একবার এটা একবার দুইবার ট্রাই করতে পারেন।  কিন্তু মনে রাখবেন, এই  মিলিটারি ডায়েট ছেড়ে পুরোপুরি  আগের লাইফস্টাইলে চলে গেলে  ঝরে যাওয়া সব ওজন খুব দ্রুত ফেরত  আসবে। এইজন্য ভালো ফল পেতে  চাইলে খাবারে অতিরিক্ত চিনি, লবণ, তেল, মসলা আর কোল্ড ড্রিংকস একেবারেই ছেড়ে দেবার চেষ্টা করুন।

চলুন জেনে নিই মিলিটারি ডায়েট প্ল্যান সম্পর্কে-

এই ডায়েট প্ল্যান ২০০৭ সাল থেকে সারা বিশ্বে সমাদৃত। অস্মভব জনপ্রিয় হওয়াতে এর মত অনেক ডায়েতপ্লান আজকাল দেখা যায়। এখানে থাকবে মোট তিন দিনের ফুড প্ল্যান (ব্রেকফাস্ট , লাঞ্চ আর ডিনার)। এই প্ল্যানের বাইরে এই তিন দিনে আর কিছু খাওয়া যাবে না।

সাবধানতাঃ

  • মিলিটারি ডায়েট প্ল্যান শুরু করার আগে অবশ্যই আপনার ডাক্তারের সাথে কথা বলে নেবেন। বিশেষ করে যাদের লো বা হাই প্রেশার আছে অথবা গ্যাস্ট্রিক বা অ্যাসিডিটির সমস্যা আছে।
  • তিন দিনের পর ব্রেক নিন। তিন দিনের বেশি একনাগাড়ে এই ডায়েটে থাকবেন না। চাইলে ৪ দিন ব্রেক নিয়ে আবার শুরু করুন।
  • মিলিটারি ডায়েট প্ল্যান করা অবস্থায় ক্লান্ত লাগলে বা মাথা ঘুরলে সাথে সাথে ডায়েট ছেড়ে দিন।
  • ডায়েট চলাকালীন সময়ে কোন ধরনের সাপ্লিমেনট/ভিটামিন খাবেন না।
  • কোন রোগের চিকিৎসা চলতে থাকলে এটা করবেন না।

 প্রথম দিনঃ

 ব্রেকফাস্ট-

  • একটা ছোট কমলা/অর্ধেক গ্রেপফ্রুট
  • এক স্লাইস টোস্ট
  • দুই টেবিল চামচ কম লবণের পিনাট বাটার (সুপারশপে পাবেন)
  • চিনি ছাড়া এক মগ কফি/চা/গ্রিন টি

লাঞ্চ

  • অল্প লবণে রান্না করা আধা কাপ/এক টুকরা মাছ (তৈলাক্ত মাছ যেমন পাঙ্গাশ, আইড় নয়)
  • এক স্লাইস টোস্ট
  • চিনি ছাড়া এক মগ কফি/চা/গ্রিন টি

ডিনার

  • অল্প তেল আর লবণে গ্রিল করা মুরগির বুকের মাংস বা লেগপিস
  • আধা কাপ বরবটি/ এক চামচ বিন সিদ্ধ (হালকা লবণ আর গোলমরিচ দিয়ে সিদ্ধ করবেন, চাইলে চিকেন স্টক দিতে পারেন। বিন আর স্টক দুটোই সুপারশপে পাবেন। যদি বিন না পান তবে কম লবণে রান্না করা আধা কাপ ডাল খেতে পারেন)
  • একটা কলার অর্ধেক/ একটা ছোট সবরি কলা/এককাপ পেঁপে
  • একটা ছোট আপেল
  • এক টেবিল চামচ ভ্যানিলা আইসক্রিম (পুরো এক স্কুপ বা কাপ কিন্তু না)

দ্বিতীয় দিনঃ

ব্রেকফাস্ট

  • একটা সিদ্ধ ডিম
  • এক স্লাইস টোস্ট
  • একটা কলার অর্ধেক/ একটা ছোট সবরি কলা/এককাপ পেঁপে

লাঞ্চ

  • একটা সিদ্ধ ডিম
  • এক স্লাইস ঢাকাই চিজ (আধা সে.মি. পুরু)/ আধা কাপ টক দই
  • ৫ টা ডায়াবেটিক ক্র্যাকারস

ডিনার

  • গ্রিল করা মুরগির বুকের মাংস বা লেগপিস (২ পিস খেতে পারেন)
  • এক কাপ অল্প লবণ, গোলমরিচ আর চিকেন স্টকে সিদ্ধ করা ব্রোকলি (ব্রোকলির বদলে সমপরিমাণ ফুলকপি, বাঁধাকপি বা বিট খেতে পারেন)
  • আধা কাপ গাজর
  • একটা কলার অর্ধেক/ একটা ছোট সবরি কলা/এককাপ পেঁপে
  • এক টেবিল চামচ ভ্যানিলা আইসক্রিম (পুরো এক স্কুপ বা কাপ কিন্তু না)

তৃতীয় দিনঃ

ব্রেকফাস্ট

  • ৫ টা ডায়াবেটিক ক্র্যাকারস
  • এক স্লাইস ঢাকাই চিজ (আধা সে.মি. পুরু)/ আধা কাপ টক দই
  • একটা ছোট আপেল
  • চিনি ছাড়া এক মগ কফি/চা/গ্রিন টি

লাঞ্চ

  • একটা সিদ্ধ ডিম
  • -এক স্লাইস টোস্ট

ডিনার

  • অল্প লবণে রান্না করা আধা কাপ/এক টুকরা মাছ (তৈলাক্ত মাছ যেমন পাঙ্গাশ, আইড় নয়)
  • -একটা কলার অর্ধেক/ একটা ছোট সবরি কলা/এককাপ পেঁপে
  • -এক কাপ ভ্যানিলা আইসক্রিম

কীভাবে কাজ করে মিলিটারি ডায়েট প্ল্যান ?

মিলিটারি ডায়েট প্ল্যান দাবি করে যে এই ডায়েটে আপনার মেটাবোলিজম বাড়ে। প্রোটিন রিচ এই ডায়েট আপনাকে শক্তি যোগায় আর মেদ ঝরানোকে ত্বরান্বিত করে। আপনাকে এক নাগাড়ে তিন দিন এই ডায়েটে থাকতে হবে এবং যদি কাঙ্খিত ফল না পান তবে তিন দিনের প্ল্যান শেষে ৪ দিন গ্যাপ দিয়ে আবার ডায়েটে ফিরে যান।

এক্সারসাইজ?

এই মিলিটারি ডায়েট প্ল্যান থাকা অবস্থায় যেকোনো ফ্রিহ্যান্ড এক্সারসাইজ করতে পারবেন। যেমন- জগিং, হাঁটা, সাঁতার, দড়িলাফ ইত্যাদি। এটা  নির্ভর করে আপনার শারীরিক সক্ষমতা এর উপরে। তবে ভারী  এক্সারসাইজ থেকে বিরত থাকুন।

ওজন ফিরে আসার ভয় পাচ্ছেন?

  1. খাদ্যাভ্যাস আর জীবনযাত্রা  পরিমিত করুন।
  2. দিনে দুই চা চামচের বেশি চিনি খাবেন না, সব ধরনের মিষ্টি এড়িয়ে চলুন
  3. সারা দিনে যেন কোন ভাবেই ৫ গ্রামের বেশি লবণ খাওয়া না হয়। রান্নায় লবণ কমাতে পারেন
  4. প্যাকেটজাত খাবার এড়িয়ে চলুন।
  5.  অবশ্যই মিলিটারি ডায়েট প্ল্যান চলার সময় ও তার পরেও দিনে ২.৫ লিটার বা পারলে তার বেশি পানি খান।
  6. দিনে অন্তত ১৫ মিনিট এক্সারসাইজ করার অভ্যাস গড়ে তুলুন।

যদি এই ডায়েট সঠিকভাবে ফলো করতে পারেন অবশ্যই আপনি ওজন কমাতে সক্ষম হবেন। কিন্তু আবারো মনে করিয়ে দিচ্ছি, প্রেশার বা অ্যাসিডিটির সমস্যা থাকলে এই ডায়েটে যাবেন না। হিতে বিপরীত হতে পারে।

বর্তমান যুগের তরুণ তরুণীদের মাঝে স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সচেতনতা বেড়েছে। অনেকেই দেখা যাচ্ছে শরীরে অতিরিক্ত মেদ চর্বি দেখা দিলে চিন্তিত হয়ে পড়েন। ব্যায়াম কিংবা খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তনের মাধ্যমে কীভাবে মেদ কমাবেন, সেই উপায় খুঁজে থাকেন তারা। চিন্তার আর কোন কারণ নেই। ই হাসপাতাল আছে আপনার দের পাশে। আমরা সব বয়সি এবং সব ধরণের শারীরিক কন্ডিশনের মানুষের জন্য ডায়েট কন্ট্রোল করার প্ল্যান করেছি। এই জন্য ইহাসপাতালের ব্লগটি নিয়মিত পড়ুন। ডায়েট কন্ট্রোলের জন্য আপনার সবচেয়ে পছন্দের প্ল্যানটি বেছে নিন। এই বিষয়ে আরো বিস্তারিত পরামর্শের জন্য ফোন করুন আমাদের কাছে।

একদল নিবেদিত প্রান মানুষের স্বপ্নের ফসল ই হাসপাতাল। আমাদের মূল লক্ষ হচ্ছে সকল প্রকার স্বাস্থ্যসেবা সাধারণ দোরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়া। চিকিৎসা বিষয়ক সুপরামর্শ প্রদান করা, বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের অ্যাপয়েন্টমেন্টের ব্যবস্থা করে দেওয়া, প্রয়োজনে হাসপাতালে ভর্তি ও সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করা, দুর্লভ ঔষধ সমুহের প্রাপ্যতা নিশ্চিত করা, সাধারণ মানুষকে স্বাস্থ্য সম্পর্কে সচেতন করার লক্ষে কাজ করে যাচ্ছে ই হাসপাতাল।

জরুরী মুহূর্তে স্বাস্থ্যসেবা পাওয়ার জন্য অথবা আপনার স্বাস্থ্য সংক্রান্ত যেকোনো সমস্যার সমাধান পাওয়ার জন্য আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন।

ইমেইলঃ support@ehaspatal.com;  ওয়েবসাইটঃ http://ehaspatal.com/